Thursday , October 22 2020
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
Home / আক্কেলপুর / বিরোধপূর্ণ জমিতে দেয়াল নির্মাণ নিয়ে বিবাদ,আক্কেলপুরে একজনের মৃত্যু

বিরোধপূর্ণ জমিতে দেয়াল নির্মাণ নিয়ে বিবাদ,আক্কেলপুরে একজনের মৃত্যু

রবিউল ইসলাম রুবেল,আক্কেলপুর

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে বিরোধপূর্ণ জমিতে দেয়াল নির্মাণ নিয়ে দুপক্ষের বিবাদ চলাকালে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার কানুপুর হালির মোড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির নাম জুয়েল হোসেন (৪৮)। তিনি কানুপুর হালির মোড় গ্রামের বাসিন্দা।

জুয়েলের স্বজনেরা দাবি করেছেন, লাঠির আঘাতে জুয়েলের মৃত্যু হয়েছে। তবে গ্রামবাসীর দাবি, জুয়েল আগে থেকেই অসুস্থ ছিলেন। বিবাদ চলাকালে আরও বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ে তিনি মারা গেছেন। কেউ তাঁকে মারধর করেনি।

গ্রামবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, জুয়েল হোসেনের সঙ্গে তাঁর চাচাতো ভাই আবদুল আলিমের (৪২)বসতবাড়ির জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছিল। আজ সকালে আবদুল আলিম লোকজন নিয়ে বিরোধপূর্ণ ওই জমিতে দেয়াল নির্মাণের জন্য খোঁড়াখুঁড়ি করছিলেন। জুয়েলের বড় ভাই ফরিদ হোসেন সেখানে গিয়ে বাধা দেন। তখন আবদুল আলিমের লোকজন ফরিদ হোসেনকে মারধর করেন। এ নিয়ে তাঁদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে জুয়েল হোসেন ঘর থেকে ঘটনাস্থলের কাছাকাছি গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্থানীয় লোকজন তাঁকে বাড়ির উঠানে নিয়ে এসে চেয়ারে বসিয়ে রাখেন। পরে সেখানেই তিনি মারা যান। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে জুয়েলের স্বজনেরা আবদুল আলিমের ওপর চড়াও হন। পরিস্থিতি দেখে স্থানীয় লোকজন জাতীয় জরুরি সেবা কেন্দ্রের ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে বিষয়টি জানান। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে আবদুল আলিম, তাঁর স্ত্রী শিরিন খাতুন (৩৭) ও আলিমের ছোট ভাইয়ের স্ত্রী মারুফা খাতুনকে আটক করে।

মারা যাওয়া জুয়েল হোসেনের ছোট বোন ফুরকুন খাতুন বলেন, ‘আমি রান্না করছিলাম। তখন বাড়ির পাশে জমি নিয়ে আমার বড় ভাই ফরিদের সঙ্গে আবদুল আলিমের ঝগড়া চলছিল। এটি দেখে জুয়েল সেখানে গেলে তার অণ্ডকোষে লাঠির আঘাত লাগে। এতে আমার ভাই অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে বাড়িতে আনা হয়। এরপর জুয়েল মারা যান। ’

কানুপুর গ্রামের বাসিন্দা আবদুস ছালাম বলেন, জুয়েল হোসেন আগে থেকেই অসুস্থ বোধ করছিলেন। জমি নিয়ে বিবাদ চলাকালে সেখানে যাওয়ার আগেই বুক চেপে ধরেন তিনি। পরে লোকজন তাঁকে তাঁর বাড়িতে এনে চেয়ারে বসিয়ে রাখেন। কিছুক্ষণ পর জুয়েল মারা যান।

লাশের সুরতহাল প্রস্তুতকারী আক্কেলপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শাহ আলম বলেন, জুয়েলের লাশে কোথাও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে তাঁর মৃত্যুর সঠিক কারণও জানা যায়নি। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

About Joypur Hat

Check Also

আক্কেলপুরে কলাগাছের পাতা কাটায় ২ কিশোরকে নির্যাতন

এস ডি সাগর,জয়পুরহাট জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে কলা গাছের পাতা কাটার অপরাধে ছাইম (১২) ও জিয়ান (১৩) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *