Tuesday , October 20 2020
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
Home / মুক্তিযুদ্ধ, ইতিহাস ও ঐতিহ্য / জয়পুরহাট-বগুড়া মহাসড়ক নির্মাণের ইতিকথা

জয়পুরহাট-বগুড়া মহাসড়ক নির্মাণের ইতিকথা

সময়টা ১৯৬৮-৭০,একদল মাটিকাটার শ্রমিক কোদাল হাতে আবাদি জমি ,আইল – জঙ্গল এ মাটি কেটে একটি মাটির সড়ক তৈরি করলেন।এই মাটির সড়কটি সেই সময়ে মুহুকুমা শহর জয়পুরহাটের সাথে জেলা শহর বগুড়া আর রাজধানী শহর ঢাকার সাথে সড়ক যোগাযোগ সম্পূর্ণ নিশ্চিত করল।

 

স্বাধীনতার পরে একটু একটু করে এই সড়কে মাটি কাটার কাজ শেষ হল। একযুগ পরে সেই সড়কে এক সময় ইট-খোয়া-পাথর বসল। লোকজন নাম দিলেন সি এন্ড বি ( এলাকার মানুষ বলত “সিম্বি” ) রাস্তা। আশির দশকের পরে থেকে সেই সড়কটি জয়পুরহাট জেলার যোগাযোগ প্রধান মাধ্যম হয়ে উঠল। আধুনিকতার ছোঁয়ায় সেই মাটির সড়কটি ই হয়ে উঠল আজকের বগুড়া-জয়পুরহাট (মোকামতলা-জয়পুরহাট) সড়ক। কিন্তু যে ক্ষণজন্মা মহাপুরুষের প্রচেষ্টায় আজ জয়পুরহাট বাসি আজকের পাকা সড়ক পেল ,কয়েক লাখ মানুষের দীর্ঘ দিনের পাকা সড়ক সম্পূর্ণ হল , তিনি হলেন পাক-সরকারের কৃষি এবং খাদ্য মন্ত্রণালয়ের কালাইয়ের কৃতি সন্তান মরহুম কাজী মোখলেসুর রহমান।

আজকের বগুড়া – জয়পুরহাট সড়কের রূপকার এই মহাপুরুষের আত্মার প্রতি রইল বিনম্র স্রদ্ধা।। আজকের রাজনীতি শুধু পেট্রোল বোমা, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড এবং ক্রসফায়ার নীতিতে পরে রয়েছে, রাজনীতিতে অভাব শুধু কাজী মোখলেসুর রহমান এর মত উন্নত মানসিকতার নিভৃতচারি মানুষদের।

About Joypur Hat